দর্পণ || কবিতা কোলাজ || শিবাজী সান্যাল




পোস্ট বার দেখা হয়েছে

অহল্যা

মহানগর ঘুমোলে , অপরিচিত মনে হয়
প্রতিদিনের চেনা রাস্তা , ব্যতিক্রমী  শূণ্যতায়
আমি জাগি কবিতার খাতায় , ছন্দের দ্বন্দ্বে
শত কল্পনার দোলনায় , আর কিছু সত্যের ছায়ায়
তুমি অহল্যা , ছিলে পাথরে সমাহিত, দীর্ঘদিন
উঠেছিলে জেগে , স্পর্শে আমার , আমারই অজান্তে
সেদিন হঠাৎ বসন্ত আর মৃদঙ্গের সুরে 
                 এক অনুরণন মেতেছিল চারদিকে । 

সময়ের গহ্বরে চাপা সেই সুপ্ত উজ্জ্বল বর্ণমালা 
পেয়েছিল প্রাণ , তোমার চেতনায় , সুরের মূর্ছনায়
অরুণোদয়ের পূণ্য লগ্নে সহস্র চোখ
                 দেখেছিল তোমাকে অপার মুগ্ধতায়। 

বলেছিলে , “ থেকো পাশে , নইলে আবার পাথর হব - - - ।  ”

আমি আছি অগ্নি অঙ্গীকারে ,মিশে তোমার অনুভবে
সতত কাছে বা দূরে , সমুদ্র বিশ্বাসে , নিঃশ্বাসে ,
রয়েছ তুমি , হয়ে শক্তি আমার , রচনার প্রেরণায়।

====

যখন একাকী

এই জনপদে , লক্ষ মানুষের ভিড়ে
কিছু জীবন থাকে সম্পূর্ণ ভিন্ন , ভীষণ  একাকী 
দক্ষিণের মাধবীলতা ছেয়ে থাকে ঘরের প্রবেশমুখ
শেষ অগ্রহায়ণের নিশীথ শিশিরে
বিন্দু বিন্দু না বলা কথা , অরূনোদয়ের স্পর্শে
মিশে যায় অনন্ত সমীরণে , সবার অগোচরে
যে আশ্বাসে সেজে ওঠে আঙিনার হলুদ গোলাপ 
পরে থাকে পরিত্যক্ত শুকনো পাতার মত আহত
রক্ত ঝরে পাখির  ডানায় , পারেনা উড়তে আকাশে
ধোঁয়ায় অস্পষ্ট দৃশ্য তখন স্থির উপত্যকায়। 

দাদরা  তালে বাইজির ঘুঙুরে বাজে চাপা কান্না 
মদিরার উল্লাসে ঢেকে যায়, চিরকাল অদেখা
সমুদ্রের যে জলরাশি চাঁদের আলোয় ভরে জোয়ারে
তাও প্রহর কেটে গেলে পরাজিত ভাটায় যায় ফিরে। 

সুখ আর দুখ , অনন্তকাল রয়েছে প্রতিদ্বন্দ্বী 
অকস্মাৎ বিরান হয় সুরের মোহন বিস্তার 
স্বরলিপি হারালে। দিশাহীন তখন ছুটে ফেরা
এই জনপদে , লক্ষ মানুষের ভিড়ে , ভীষণ  একাকী।

=====
মনে রেখো সখী 


জানিনা এভাবে কত প্রাণ আছে কাটায় তমসা মাঝে
চাপা থাকে বুকে সবার অদেখা প্রতিদিন প্রতি সাঁঝে
কত কথা আছে কত ব্যথা আছে সবটাই অগোচরে
এমনি করেই যাযাবর মন ঘুরে ফেরে চরাচরে
তিল তিল করে স্মৃতি আছে যত  মোহনায় ফিরে আসে
অরুণ কিরণে চাঁদের আলোতে কনক প্রদীপ ভাসে।

কবিতার খাতা খুলে খুলে দেখে শব্দের যত উচ্ছ্বাস 
শুধু তাকে ভেবে বকুল পরশে রঙে ভরে চারপাশ
আষাঢ়ের মেঘ বৃষ্টির গান থর থর কম্পনে
ভেজা দৃষ্টির কম্পিত ঠোঁটে শিহরণ আনমনে

ভুলেছ কি তুমি সবকিছু তার গোধূলির আঁকেবাঁকে ?
মনে রেখো সখী সাগরের ঢেউ একভাবে জেগে থাকে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

4 মন্তব্য

  1. কবিতা কোলাজ ভীষণভাবে আমাকে মুগ্ধ করলো। কি যেন আছে লেখাগুলোর মধ্যে। এক চিরায়ত অন্বেষণ যেন প্রতিটি চরণের বাঁকে বাঁকে! এই অনন্ত খোঁজার মধ্যেই লুকিয়ে থাকে কবিতার ঈশ্বর।।

    উত্তর দিনমুছুন


  2. ঘুমন্ত মহানগর কিংবা লক্ষ মানুষের ভিড়েও ভীষণ একা ৷এই একার মধ্যে থাকে একাকীত্ব ৷

    মুগ্ধ হলাম প্রতিটা লেখায় ৷

    উত্তর দিনমুছুন
  3. ভীষণ সুন্দর প্রতিটি লেখা ! অসাধারণ 👏👏

    উত্তর দিনমুছুন